আজকের বৈঠকে মহাসচিবকে পদত্যাগ করতে বলা হলে তিনি নাকচ করে দেন এবং তার সাথে ভেটো দেন আনাস বিন শফী এবং সাজিদুর রহমান সাহেব।মহাসচিব বললেন: আমি এভাবে পদত্যাগ করবোনা, আমি এখান থেকে কয়েকজনকে নিয়ে গিয়ে হাটহাজারী হুজুরের সাথে কথা বলবো। পরে এভাবে বিষয়টি ঝুলিয়ে দেয়া হয়।আমরা তরুণ প্রজন্ম দ্ব্যার্থহীন কন্ঠে আবারো ঘোষণা করছি “আব্বা কইছে কিংবা হাটহাজারী হুজুর কইছে”এ ধরনের কোন সিদ্ধান্ত আমরা শুনতে ও মানতে প্রস্তত নই। আমাদের দাবী, যা হবে স্বাধীন মতামত পেশ করা যায় এমন শুরার মাধ্যমে হবে কোন সিন্ডিকেটের সুযোগ দেয়া হবেনা। সিন্ডিকেট সিন্ডিকেট খেলা আজ আমাদের এতো অধঃপতনে নিয়ে এসেছে।আমরা আর কোন অজুহাতে কালক্ষেপন চাইনা।পরিস্থিতি ঘোলাটে না করে তিনি দ্রুত পদত্যাগ করবেন বলে আশা করি।

May be an image of text that says "3 বালাদেশ क കച് ৪৮ ঘন্টার মধ্যে বেফাক মহাসচিবসহ অন্যায় ও দুর্নীতিতে অভিযুক্তদের পদত্যাগ দাবি করছি! অন্যথায় কওমি ছাত্র-শিক্ষকদের পরবর্তী কর্মসূচি স্বাস্থ্যবিধি মেনে মানববন্ধন! স্থান: বাইতুল মোকাররম উত্তর গেইট শুক্রবার বাদ আসর প্রচারে: কওমী ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিশ্বদ্দ"